Your shopping cart is empty Log in
| About Boi Mela | Customer Service | Contact
 HomeAdvanced SearchNew BooksPublisher List

 Download Free Books
 
 Boi Mela 2012 Books
 
 Download Free Textbooks
 
 English Titles
 
 Top #100 Bestsellers
 
 Authors List
Humayun Ahmed
Qazi Anwar Husain
Imdadul Haq Milon
Muntassir Mamoon
Muhammed Zafar Iqbal
Rakib Hassan
 See all Authors...
 
 Category Listing
Novels
Children
Reference
Poetry
Stories
Biography
Essays
Muktijuddho
History
Science
 See all Categories..
 
 Publisher List
Anannya
Mowla Brothers
Somoy Prokashon
Oitijjhya
Annyaprokash
 See all Publishers...


  Information
Shipping Information
Payment Options
Order Tracking
Privacy & Security
Our Friends
 Help Us

Google
Web Boi Mela


Banglapedia Articles
Charter Acts
Concubinage
High Court Building (Old)
Housing
MIDAS
Patuya Sangit

Web Hosting by Alpha Net

Boi-Mela.com is hosted by Alpha Net's Web Hosting in Bangladesh. Alpha Net is the best Web Hosting company in Bangladesh offering low cost Linux Hosting, ASP.NET Hosting, VPS, & Dedicated Servers for over 16 years.

Are you looking to find a Martial Arts School around you? Try dojos.info. There are over 30 thousand Martial Arts Schools that you can search by location, style, name etc. For Canada, see dojos.ca and dojos.com.au for Australia.

For Martial Arts Schools in UK, try UK's Dojo Directory.

 

 

 


Robindrokabber Dhrupodi Dorshon /
-
Robindrokabber Dhrupodi Dorshon By:Dr. Rahman Habib Book Type: Reference
  বইটি কিনতে ফোন করুন
0197-2646352
(0197-BOIMELA)
Book Code 9539
Publisher Shuchipotro / সূচীপত্র
Book Type Reference [+]
Published December, 2008
ISBN 9847002200301
Language Bangla
Binding Hardcover
Price Tk. 150.00
   
বইটি বাংলায় দেখুন
Available in Stock
   
Quantity  
DBBL Nexus

More books from the Author

Al Mujahidi: Mrittikar Kobi By:Dr. Rahman Habib Pracchotottobadider Jobabe Islam By:Dr. Rahman Habib Islam O Gyantotto By:Dr. Rahman Habib Amar Hater Lekha 1st Part By:Dr. Rahman Habib Amar Hater Lekha 2nd Part By:Dr. Rahman Habib

Al Mujahidi: Mrittikar Kobi

Pracchotottobadider Jobabe Islam

Islam O Gyantotto

Amar Hater Lekha 1st Part

Amar Hater Lekha 2nd Part

These books are for Free!!!

Prothom Poribar By:Mohammad Mamunur Rashid Joloj [DP] By:Muhammed Zafar Iqbal Mayakanon By:Iqbal Alamgir Kabir Class VII Anandapath Bangla Drutopathon By:NCTB Authors Class VII English For Today By:NCTB Authors

Prothom Poribar

Joloj [DP]

Mayakanon

Class VII Anandapath Bangla Drutopathon

Class VII English For Today
Description:
রবীন্দ্রকাব্যদর্শন

'রবীন্দ্রকাব্যদর্শন ড. রহমান হাবিবের একটি উল্লেখযোগ্য সাহিত্য সমালোচনা কর্ম। রবীন্দ্রকাব্যদর্শন বিষয়ে ইতোপূর্বে যে কিছু গ্রন্থ রচিত হয়নি তা নয়, তবে রবীন্দ্র কাব্যগ্রন্থের 'ক্রমপরিণতিমূলকতার' সঙ্গে সম্পর্কিত করে রবীন্দ্রকাব্যদর্শনকে সুস্পষ্ট এবং সুচারূপে পাঠক সমাজে উপস্থাপিত করার তেমন প্রয়াস পূর্বে আমরা পাইনি। ড. রহমান হাবিব সেই দৃষ্টিকোণ থেকেই 'রবীন্দ্রকাব্যদর্শ' গ্রন্থটি রচনায় প্রণোদিত হয়েছে। এ গ্রন্থ সম্পর্কে ড. রহমান হাবিবের নিজস্ব ভাষ্য হলো 'জীবনাচরণের সামগ্রিক রূপায়বকে রনীন্দ্রনাথ কিভাবে চিরকালিনতায় উপস্থাপন করেছেন, সেই কাব্যদর্শন তাৎপর্যসহ রবীন্দ্রনাথের দেশাত্মবোধ, লোকচেতনাবোধ, প্রেমবোধ, বিশ্বাত্মবোধ ও নান্দনিক বোধের পরিচর্যাসমেত জীবন দেবতাভাস্যের সর্বেশ্বরবাদী চৈতন্যের বিস্তার সম্পৃক্ত বস্তুবিশ্ব ও আত্মবিশ্বের অনুভববাদী সমীকৃতিতে কবি? স্রষ্টা ও সৃষ্টি সম্পর্কের অনুপণেয় অপরিসীমতা কিভাবে তার কাব্য তাৎপর্য ধৃত হয়েছে রবীকাব্যদর্শনের সে বিশ্লেষণ, ব্যাখ্যাও মূল্যায়নই এই গ্রন্থে অন্বিষ্ট হয়েছে।' ড. রহমান হাবিব গ্রন্থটিকে মোট তিনটি অধ্যায়ে বিন্যস্ত করেছেন। প্রথম অধ্যায়কে 'রবীন্দ্রকাব্যের প্রাসঙ্গিকতা : একবিংশ এবং অনাগত শতাব্দী' নামে চিহ্নিত করেছেন। দ্বিতীয় অধ্যায়কে 'রবীন্দ্রকাব্যদর্শন' এবং তৃতীয় অধ্যায়কে 'উপসংহার' নামে বিভাজিত করেছেন।
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর আধুনিক বাংলার কবিতার রূপকার : একথা সর্বজনীনভাবেই স্বীকৃত। ড. রহমান হাবিবের দৃষ্টিতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বিশ্বসাহিত্যের মহান লেখক এবং অন্যতম শ্রেষ্ঠকবি, তিনি রবীন্দ্রনাথকে মহান এবং রবীন্দ্র কাব্যকে মহৎ সাহিত্যকর্ম বলে অভিহিত করেছেন এ কারণে যে, তিনি মনে করেন রবীন্দ্রনাথ সমগ্র বিশ্বমানবাচরণকে অত্যন্ত পরিমার্জিত কাব্যপনায় তীক্ষ্ম বুদ্ধিবৃত্তিকতায় রূপান্তরিত করে ছিলেন। মনুষ্য প্রকৃতির বিচিত্রতা রবীন্দ্রমানসকে বিশেষভাবে আকর্ষণ করেছে। সেই বিচিত্রমুখী মানবস্বভাবকে সর্বকালীন এবং সর্বজনীনতার উপাচার দিয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তার কাব্যভুবনকে সজ্জিত করেছে। রবীন্দ্র কাব্যের ভারতীয় ভাববাদী দর্শনের যে প্রজ্ঞাময় উপস্থিতি ড. রহমান হাবিব তাকে ইউরোপীয় বস্তুবাদী বা সমগ্র পাশ্চাত্য দর্শনের বিপরীতে একটি সুদূরপ্রসারি এবং স্বাতন্ত্র্যবৈশিষ্ট্যে সমুজ্জ্বল হিসেবে প্রতীয়মান করেছেন। তিনি লিখেছেন 'জীবন, সমাজ, সমকাল নিয়ে বিশ্ব সাহিত্যের মহারথীগণ কাব্যিক অনুভব ব্যক্ত করেছেন; রবীন্দ্রনাথ। তা তো করেছেনই; তার সঙ্গে ভাবাত্মার অতীন্দ্রিয় ভাববাদের মৌল সত্তাকে তিনি কাব্যিক দার্শনিকতায় উপস্থাপন করেছেন।'
'রবীন্দ্রকাব্যদর্শন' গ্রন্থটির প্রথম অধ্যায়ে ড. রহমান হাবিব 'সঞ্চয়িতা' স্থিতি ভানুসিংহ ঠাকুরের পদাবলী; 'সন্ধ্যাসঙ্গীত', 'প্রভাতসঙ্গীত', 'ছবি ও গান; 'কড়ি ও কোমল; 'মানসী'; 'সোনার তরী'; 'বিদায় অভিশাপ' 'চিত্রা'; 'চৈতালি'; 'কনিকা; 'কল্পনা'; 'কথা'; 'কাহিনী', 'ক্ষণিকা'_ কাব্যসমূহের আলোক রবীন্দ্রকাব্যের কালোত্তীর্ণতা এবং রবীন্দ্রকাব্যে অন্তর্নিহিত বস্তুজগৎ ও ভাবজগতের মধ্যে সুসমন্বিত পারস্পরিকতাকে তুলে ধরেছেন।
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর প্রখর মানবিকবোধসম্পন্ন মানুষ ছিলেন। তাইতো তার কাব্য 'মানবিক ও চেতনাগত যোগাযোগ সতত রক্ষা করে ক্রমশ লক্ষ্যমুখী স্থিরগন্তব্যে যাত্রা করেছে;' বলে ড. রহমান হাবিব একান্তভাবে বিশ্বাস করেন। অন্যান্য রবীন্দ্রকাব্য বোদ্ধাদের মতো তিনিও দৃঢ়তার সঙ্গে চিত্তে ধারণ করেছেন যে, রবীন্দ্রকাব্যদর্শনের প্রজ্ঞাও মাধুর্যময় স্বরূপ বর্তমানকে অতিক্রম করে সুদূর ভবিষ্যতের প্রজ্ঞাবান কাব্যপাঠকদের চিত্তে সমানভাবে বিরাজিত থাকবে। মানবমানবীর দেহজ ও হৃদয় চৈতন্যের অনুরণন, হিন্দু ও বৌদ্ধ ধর্মের জন্মান্তরবাদী দর্শনের ভাবধারা সৃষ্টিকর্তার প্রতি রবীন্দ্র মানসের ইতিবাচক দায়িত্বশীল অভিব্যক্তি_ রবীন্দ্র কবিতায় সর্বব্যাপিতায় ব্যাপ্ত হওয়ায় রবীন্দ্র কাব্যদর্শন কালোত্তীর্ণ জীবনময়তা লাভ করবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন।
উল্লেখ্য, রবীন্দ্রনাথ তার লেখনীর ষাট বছরের অধিককালে পঁয়তালি্লশখানার ওপর কাব্য রচনা করেছেন। তার প্রাথমিক পর্বের কাব্যসাধানা থেকে মৃত্যুর পূর্বমুহূর্তের রচিত কাব্যসমূহের মধ্যে একটি ক্রমবিবর্তন ধারা সহজেই লক্ষযোগ্য। নর-নারীর সহজাত প্রেম, জগৎ জীবনের চিরায়ত রূপ, জগৎস্রষ্টার অবিনশ্বর অস্তিত্ব, জন্মান্তরবাদ প্রভৃতি সম্পর্কে রবীন্দ্রনাথের প্রাথমিক পর্বের কাব্যে যে দৃষ্টি প্রকাশমান; তার পরিণত কাব্যসমূহে সেই দৃষ্টিভঙ্গিরই প্রসারিত উত্তরাধিকারিও করেছে।
দ্বিতীয় অধ্যায়, ড. রহমান হাবিব রবীন্দ্রনাথের আলোচ্য পনেরোটি কাব্যগন্থ সম্পর্কে যে আলোচনা করেছেন; তার সেই দৃষ্টিভঙ্গির সারসংক্ষেপ এখানে তুলে ধরা হলো_ 'লোক ঐতিহ্যচেতনা, সৃষ্টি মানসের জাগৃতি, জন্মান্তর বন্দিদর্শন, প্রেমজ চৈতন্যের ক্ষেত্রে দেহজ ও দেহোত্তর ভাবনার অনুরণন'। তিনি এ কাব্যসমূহে প্রত্যক্ষ করেছেন। 'ভানুসিংহ ঠাকুরের পদাবলী' কাব্যে লোক ঐতিহ্যের শাশ্বতরূপ সম্পর্কে রবীন্দ্র দৃষ্টিভঙ্গিকে তিনি অধিক গুরুত্ব দিয়েছেন। 'সন্ধ্যাসঙ্গীত' ও 'প্রভাতসঙ্গীত' কাব্য সম্পর্কে তার অভিমত হলো- 'এ কাব্যদ্বয়ে সর্বব্যাপ্ত সৃষ্টি প্রজ্ঞার স্বাতন্ত্রিকতার আকাঙ্ক্ষা পরিব্যাপ্ত হয়েছে।' এখানে উল্লেখ্য যে, 'প্রভাতসঙ্গীত' কাব্য হতে রবীন্দ্র মানস যে বৃহত্তর জগতের সিহংদ্বারে পদার্পণ করেছিল, সেই মানসপট 'ছবি ও গান' কাব্যে আরও বেশি পরিপক্কতা লাভ করেছে। এ কাব্যে প্রেম চৈতন্যের অনিবার্যতার সঙ্গে জন্মন্তরবাদী দর্শনের অনুভাবনা সৃষ্টির অবিনশ্বরতা সম্পর্কে রবীন্দ্রনাথের নবজাগ্রত চৈতন্যের প্রতিফলন স্পষ্টায়িত হয়েছে।' 'কড়িও কোমল' কাব্যে দৈহিক ভোগাকাঙ্ক্ষা প্রকাশের পাশাপাশি অতীন্দ্রিয় ভাবগত চেতনার বহিঃপ্রকাশ লক্ষ্যযোগ্য। 'মানসী'তে রবীন্দ্রনাথ প্রতিভার প্রদীপ্ত উন্মেষ ঘটেছে। ড. রহমান হাবিব বিষয়বস্তুর গভীরতায় 'মানসী কাব্যকে রবীন্দ্রকাব্যাধারের অনুবিশ্ব বলে অভিহিত করেছে। তিনি মনে করেন 'মানসী'তেই অন্তপ্রেম প্রত্যাশী রবীন্দ্র মানসের যথার্থ পরিচয় পরিস্ফুট হয়েছে।
'আমরা দুজনে ভাসিয়া এসেছি যুগল প্রেমের স্রোতে
অনাদিকালের হৃদয় উৎস হতে।'
'মানসী' কাব্যে যে প্রেম ও নারী ভাবনা, নিসর্গচেতনা, দৈশিক ও বিশ্ববোধ উন্মোচিত হয়েছে; 'সোনারতরী'তে তা অপরূপ পরিণতিতে পৌঁছেছে বলে তিনি মনে করেন। 'সোনার তরী' কাব্যে দেহোত্তর প্রেমের রহস্যময়তা, নারী, প্রকৃতি এবং বিশ্বসৌন্দর্যানুভূতির এক অনির্বচনীয় আবেশে রবীন্দ্রনাথে সঞ্চারিত হয়েছে বলে তার বিশ্বাস। 'চিত্রা কাব্য কবির শৈল্পিক অনুভাবনার চূড়ান্তরূপ পরিব্যাপ্ত হয়েছে বলে ড. রহমান মনে করেন।'
তিনি লিখেছেন_ 'চিত্রা' কাব্যে কবির সর্বগ্রাসী নান্দনিক চেতনার সঙ্গে জীবন দেবতার অন্তর্মুখী প্রকাশসহ জগৎস্রষ্টার প্রতি কবির আত্মানুধাবনের বহুরৈখিক মন্ময়তা কাব্যভাষিক নন্দনরূপ পেয়েছে।' 'চৈতালি' কাব্যগ্রন্থে রবীন্দ্রনাথের মানবিকবোধ পূর্ণভাবে বিকশিত হয়েছে। বৌদ্ধ ও হিন্দুধর্মে প্রচলিত জন্মান্তরবাদী দার্শনিক চেতনাকে কাব্য ভাষ্যে রূপায়ন করে রবীন্দ্রনাথে জীবজগৎ, স্রষ্টা ও সৃষ্টিকে একাত্ম করে রেখেছেন, 'কনিকা' কাব্যে মানুষের জ্ঞানবুদ্ধির মহত্ত্বর মাধুর্যময়তার পাশাপাশি সঙ্কীর্ণতর মনোবৃত্তি এবং জগৎস্রষ্টার প্রতি জাগ্রত চেতনাসহ জীবনানুভবের গভীরতম প্রাতিবিম্বিকরূপ প্রকাশ পেয়েছে বলে ড. রহমান হাবিব মনে করেন। 'কল্পনা' কাব্যে রবীন্দ্রমানস অস্তিত্বসঙ্কট মুক্ত হয়ে সত্য মানব প্রীতিতে এবং জগৎপিতার অস্তিত্বময় অনুভবে রোমঞ্চিত হয়েছে। 'কথা' ও 'কাহিনী' কাব্যদ্বয়ে দেশীয় ঐতিহ্যবোধ এবং সৃষ্টিকর্তার প্রতি গভীরতম আত্মনিবেদিত প্রাণের আকুতি প্রকাশ পেয়েছে। 'ক্ষণিক' কাব্যে জীবনবোধের তীব্রতা অত্যন্ত প্রজ্ঞাময়তায় ধৃত হয়েছে। এরই সঙ্গে 'স্রষ্টা চৈতন্যের অসীমতাকে তার কাব্য দার্শনিক সজ্ঞায় (রহঃঁরঃরড়হ) স্বাতন্ত্রিকভাবে বিধৃত করেছেন' বলে ড. রহমান হাবিব মনে করেন।
তৃতীয় অধ্যায়ে ড. রহমান হাবিব বিভিন্ন দার্শনিক তত্ত্বের ভিত্তিতে রবীন্দ্রকাব্যদর্শনের অন্তরনির্যাস বিশ্লেষণে সচেষ্ট হয়েছে। তিনি লিখেছেন_ 'রবীন্দ্রদর্শনে যেহেতু জ্ঞানমার্গের প্রজ্ঞাময়তা, বিশ্বরূপ বৈচিত্র্যের সমীকৃত সামগ্রিকতা এবং ধর্মবিষয়ক সমস্যার মন্মীয় সমাধানের বহুরূপিতা আমরা প্রত্যক্ষ করি রবীন্দ্রকাব্যকেও উপযুুক্ত বিষয়ক বৈচিত্র্যের সানি্নধ্য সূত্রের জ্ঞানময়তার মাধ্যমে আমি বিশ্লেষণ ও মূল্যায়নে প্রবিষ্ট হয়েছি।'
রবীন্দ্রকাব্য দর্শনের মৌল প্রবণতা সম্পর্কে ড. রহমান হাবিব বলেছেন : 'তিনি আত্মিক অনুভবের প্রাজ্ঞতার শক্তিকে জীবনের সমগ্র চেতনার পরিধিতে সম্প্রসারিত করেছেন।' রবীন্দ্রনাথের মননবোধের প্রসারতায় তার কাব্যচেতনা সুনির্দিষ্ট ভৌগোলিক সীমারেখায় বা নির্দিষ্ট অনুভূতিগত অবয়বে সীমায়িত থাকেনি। তিনি প্রজ্ঞা এবং আত্মিক অনুভবের প্রাবল্যে ধর্ম, বর্ণ ও জাতিগত সঙ্কীর্ণতা অতিক্রম করে তার কাব্যদর্শনকে অনন্তকাল প্রবাহের জন্য একটি 'সর্বমানবিক ও সর্বচিন্তনময়' প্ল্যাটফর্ম হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এটিই রবীন্দ্রকাব্যদর্শনের অনন্যতা বলে ড. রহমান হাবিব মনে করেন।
রবীন্দ্রকাব্য দর্শনে যুক্তিবোধের পাশাপাশি অনুভূতিপ্রপঞ্চ এবং মননধর্মের সহাবস্থান তিনি লক্ষ্য করেন। রবীন্দ্র দর্শনে বিশ্বসত্তার আনন্দময় প্রকাশের সঙ্গে ব্যক্তির প্রীতিময় সম্পর্ক সূত্রকে একত্র সংগ্রথিত করে বিবেচনা করা হয়েছে বলে ড. রহমান হাবিবের অভিমত।
ড. রহমান হাবিব রবীন্দ্রকাব্যে অন্তর্নিহিত এ সকল বিষয়ের সম্যক জ্ঞানের অধিকারী। তিনি অত্যন্ত স্পষ্টভাষ্যে মননধর্মী ও প্রজ্ঞাময় দার্শনিক বোধসম্পন্ন বিচার বিশ্লেষণের মাধ্যমে পাঠক সম্মুখে তা প্রতিপাদিত করেছেন। পাশ্চাত্য বস্তুবাদী দর্শন, ভারতীয় ভাববাদী দর্শন, রামায়ণ, মহাভারত, গীতা, বেদ, জৈনধর্ম, বৌদ্ধধর্ম ও দর্শন মীমাংসা, সাংখ্য, যোগ, বৈশেষিক ও ন্যায় প্রভৃতি ধর্ম ও দর্শন দার্শনিক ভাবনা তাকে 'দার্শনিক সমালোচক' হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে বলে আমি বিশ্বাস করি।
তারানা তাবাস্সুম
http://www.jjdin.com/?view=details&archiev=yes&arch_date=22-11-2011&feature=yes&type=single&pub_no=280&cat_id=3&menu_id=23&news_type_id=1&index=1
 
Reader's Review
Add your own comment
  Quick Find: |A|B|C|D|E|F|G|H|I|J|K|L|M|N|O|P|Q|R|S|T|U|V|W|X|Y|Z|

© 2017 Boi-Mela
83/1 Laboratory Road , Dhaka - 1205, Bangladesh, Voice: +880 2 9131155, E-mail: info@boi-mela.com
1107, N. Forrest Avenue, Kissimmee, Florida - 34741, USA, Fax: +1 407 396 4913